Categories
লাইফস্টাইল

দাতের ব্যথায় করনীয়

দাতের ব্যথায় করনীয় -দাঁত ব্যথার রয়েছে বড়ই বাজে একটা অভ্যাস। রাতের বেলায় যখন সবাই ঘুমিয়ে পড়েছে,

ডেন্টিস্ট যখন চেম্বার বন্ধ করে বাড়ি চলে গেছেন, ঠিক তখনই দাঁত ব্যথা চরম আকার ধারণ করে।

জানেন কি, আপনার রান্নাঘরে পড়ে থাকা কিছু উপাদান দিয়ে আপনি তৈরি করে নিতে পারেন একদম প্রাকৃতিক এবং দারুণ কার্যকরী কিছু পেইনকিলার।

দাঁতে ব্যথা হলে ডেন্টিস্ট দেখাতে হবে অবশ্যই, কিন্তু তার আগে চটজলদি ব্যথা কমাবে এই উপায় গুলো। কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া ছাড়াই!

দাঁতের ব্যথার কারণ বিভিন্ন কারণে

দাঁত ব্যথা হয়। যেমনঃ দাঁত ক্ষয় হয়ে যাওয়া, দাঁতের মধ্যে খাদ্য আটকে থাকা, দাঁত অপসারণ, মাড়িতে ফোঁড়া, দাঁত বা মাড়িতে ইনফেকশন ইত্যাদি কারনে দাঁত ব্যথা হয়।

তবে দাঁত সবচেয়ে কমন কারন হলো দাঁতের নিচের স্নায়ু অর্থাৎ মাড়িতে জ্বালাপোড়া করা।

বেশিরভাগ ক্ষেত্রে মাড়িতে জীবাণুর সংক্রমনের কারণে এই সমস্যাটি হয়। দাঁতের আরো একটি কমন সমস্যা হলো দাঁত ক্ষয় হয়ে যাওয়া। দাঁত ক্ষয় হতে হতে মাড়িতে সাথে লেগে যায়।

আবার কারো কারো ঠান্ডা বা গরমের প্রতি সংবেদনশীলতা থাকতে পারে অর্থাৎ দাঁতে ঠান্ডা বা গরম লাগলে অসহ্য খারাপ লাগে, কখনো কখনো ব্যথা শুরু হয়।

আরো পড়ুনঃ   রক্তশূন্যতা দূর করার উপায়

দাঁত ব্যথায় ব্যথানাশক ওষুধ

দাঁত ব্যথা কমাতে ব্যথানাশক ওষুধ ব্যাবহার করা যেতে পারে। এজন্য একজন ডেনটিস্টের সাথে যোগাযোগ করতে হবে।

ডাক্তার নির্দেশ অনুযায়ী ওষুধ খেতে হবে। ডাক্তারের পরামর্শ ছাড়া কোনো ব্যথানাশক ওষুধ সেবন করা উচিৎ নয়।

দীর্ঘদিন যাবৎ ব্যথানাশক ওষুধ সেবন করলে না না ধরনের শারীরিক সমস্যা দেখা দিতে পারে।

বিঃ দ্রঃ এই ঘরোয়া প্রতিকারের মাধ্যমে শুধু সাময়িক ভাবে স্বস্তি পাওয়া যায়।

দাঁতের সমস্যা স্থায়ীভাবে দূর করতে একজন ডেনটিস্টের সাথে যোগাযোগ করুন।

দাঁতের সুরক্ষা ও যত্ন নিশ্চিত করতে তার নির্দেশ মেনে চলুন।

দাতের ব্যথায় করনীয়

এক কোয়া রসুন থেঁতলে নিয়ে অল্প একটু লবণ মিশিয়ে দাঁতে লাগান। বেশি যন্ত্রণা হলে এক কোয়া রসুন চিবিয়ে খান।

লবণের সঙ্গে গোলমরিচ মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। দাঁতে লাগিয়ে রাখুন কয়েক মিনিট। ব্যথা কমে গেলেও কয়েকদিন এটা করুন।

এক টুকরা কাঁচা পেঁয়াজ চিবিয়ে খেয়ে নিন। যদি বেশি ঝাঁঝ লাগে তবে দাঁতের ওপর পেঁয়াজ চেপে রাখলে আরাম পাওয়া যাবে।

১ গ্লাস কুসুম গরম পানিতে ১ টেবিল চামুচ লবণ মিশিয়ে মুখে নিয়ে ১ মিনিট রাখুন।

আরো পড়ুনঃ   মুখের দাগ দূর করার উপায়

এভাবে দিনে ৩ বার করে গুলি করুন ব্যথা কমে যায়।

এ ছাড়াও ১ টেবিল চামুচ লবণ অল্প সরিষার তেলের সঙ্গে অথবা লেবুর রসের সঙ্গে মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে মাড়িতে ম্যাসাজ করুন কয়েক মিনিট।

তারপর কুসুম গরম পানি দিয়ে কুলি করে নিন। এভাবে ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস হবে।

লবণে অ্যান্টিসেপ্টিক ও অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল উপাদান আছে। এটি মুখের ব্যাকটেরিয়ার বৃদ্ধি ব্যাহত করে প্রদাহ কমায়।

ডেন্টিস্টের কাছে যাওয়ার আগে- ভরা পেটে দুটি অ্যাসপিরিন বা একটি আইবুপ্রুফেন ট্যাবলেট খাওয়া যেতে পারে, ক্লোভ ওয়েল/লবণ তেল দাঁতে মাজা যেতে পারে।

মাড়িতে লাগলে মাড়ি জ্বালা করবে। এটি দাঁতের স্নায়ু অবস করে সাময়িকভাবে ব্যথা কমায়।

ব্যথাযুক্ত দাঁতে বরফ কুচি কাপড়ে পেঁচিয়ে রাখা যেতে পারে, গরম পানি দিয়ে কুলকুচি দাঁতের ফাঁকে জমে থাকা খাদ্যকণা সরিয়ে ব্যথা কমাবে।

দাঁতের ব্যথার জন্য যত শিগগিরই ডেন্টিস্টের কাছে যাওয়া যায় ততই মঙ্গল।

অনুগ্রহ করে আমাদের ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন।  আমাদের ফেসবুক পেইজ এ লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.